ক্ষমতায় থাকতে/যেতে হলে, জানতে হবে-২।

ক্ষমতাসীন/ক্ষমতাহীনদের নিকট বিনীত অনুরোধ–আমাদের প্রতি vindictive(ক্ষমাশূন্য, ক্ষমাহীন, প্রতিহিংসাপরায়ন)  হবেননা। কারও প্রতি আমাদের কোন হিংসা-বিদ্বেষ নেই। এমপি, মন্ত্রী/প্রধানমন্ত্রী, প্রেসিডেন্ট হওয়ার আমাদের ইচ্ছা আছে, কিন্তু কোন সুযোগ নেই।

আমরা স্বাধীনতার পক্ষের। স্বাধীনতা, বঙ্গবনধু, বাকশাল, ইত্যাদি সম্পর্কে আমরা যত strongly লিখেছি, স্বাধীনতার/আওয়ামীলীগের পক্ষের দাবীদার তথাকথিত বুদ্ধিজীবিরা এত strongly লিখেছে কিনা আমাদের জানা নেই।

আপনারা কি জানেন-পুলিশের অনেক সিপাহী/দারোগা/পরিদর্শকও সরকারী স্কুল/কলেজ/বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক/অধ্যাপককে,  ডাক্তার/ইঞ্জিনিয়ারকে স্যার সম্বোধনতো দুরের কথা, সৌজন্যবশতঃ সালামও দেয়না। আর্মি/প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা কর্মচারীদের বেলায়ও একই কথা প্রযোজ্য। একই মন্ত্রনালয়ের অধীনে বা একই ডিপার্টমেন্টে চাকুরীরত ম্যাজিস্ট্রেট/সহকারী সচিবরা  প্রধান প্রকৌশলী/চেয়ারম্যান/মহাপরিচালক/ব্যবস্থাপনা পরিচালককে  স্যার সম্বোধনতো দুরের কথা, সৌজন্যবশতঃ সালামও দেয়না।(এ বিষয়ে অনেক লিখার থাকলেও আর লিখছিনা)।

ক্ষমতায় থাকতে, পূনরায় যেতে আগ্রহীদের(বিশেষ করে এমপি, মন্ত্রী/প্রধানমন্ত্রী, প্রেসিডেন্ট হতে আগ্রহী)  প্রতি অনুরোধ- এসব হয়ে যে পরিমান ভোগ-বিলাস, রাজকীয় সুযোগ-সুবিধা,  স্যার স্যার হুজুর হুজুর, স্যালুট, সমীহ. কুর্নিশ, দেশে-বিদেশে লালগালিচা সংবর্ধনা পেয়েছেন, পাচ্ছেন, পাবেন-এর চাইতে বেশী আর কি চাই?

তাই ভবিষ্যতে PURELY সততা, দক্ষতা, দেশপ্রেমের সহিত কাজ করবেন বলে আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস। আমাদের পরবর্তী লিখা(টিপস)গুলো হবে আপনাদের সততা, দক্ষতা, দেশপ্রেমের acid test.

Related posts