দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলা তাদের “কথার কথা”।

বি, চৌধুরী, মান্না, ডঃ কামাল গং বহুবার দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলেছেন। ২৩-০৫-২০১৭ইং থেকে ডঃ কামাল দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে মাঠে নামবেন বলেছিলেন। তিনি (ডঃ কামাল) আরও বলেছিলেন, ‘ধর ধর’ বললেই দুর্নীতিবাজরা পালিয়ে যাবে- ইত্তেফাক-২৩-০৫-২০১৭।

 ডিআইএ অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী- শুধু কর্মকর্তারাই নয় মন্ত্রীরাও চোর আমিও চোর-

https://www.jugantor.com/last-page/2017/12/25/182093/

আমরা ওয়েবসাইট-ফেসবুক পেজে প্রকাশ করা ছাড়াও তাহাদের সবাইকে ই-মেইলে, GEP-যোগে সুনির্দিস্ট আইন, তথ্য প্রমানসহ দেখিয়ে দিয়েছিলাম যে, ৩(তিন)লাখ কোটি টাকা মূল্যের ৫(পাঁচ) হাজার একর ভূমি উদ্ধারসহ রাজনীতিক-ব্যবসায়ী ও আমলাদের nexus. (দ্রস্টব্যঃ- ৫(পাঁচ)হাজার একর ভূমি উদ্ধার করুন।- http://corruptionwatchbd.com/144-3/ , এসবের মানে অনেক দুর্নীতিবাজই চিহ্নিত। কই? তারাতো(বি, চৌধুরী, মান্না, ডঃ কামাল গং) কিছুই করেননি। না পারলেন তারা “ধরতে”, না পারলেন আমাদের “ধরাটা” সাইজ করতে। এতে কি প্রমানিত হয়? দুর্নীতির বিরুদ্ধে কথা বলা তাদের “কথার কথা”, স্টান্টবাজী। কারন দুর্নীতিবাজরাই অনেক রাজনীতিবিদের(সবার নহে) ক্ষমতায় যাওয়া ও থাকার প্রধান পৃষ্ঠপোষক।

Related posts