আমাদের কথা

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ধ্বংসস্তুপ থেকে আজকের জাপানের উন্নতির অন্যতম প্রধান হাতিয়ার ছিল Total quality management(TQM). এতে তারা কোন সমস্যা সমাধান কিংবা নূতন কোন উদ্ভাবনী কাজে বা দৈনন্দিন যেকোন কাজে বাসার,  সমাজের, অফিসের সর্বনিম্ন পদধারী থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ  পদধারী পর্যন্ত সবাইকে সংশ্লিষ্ট করে কি, কেন, কখন, কোথায়, কিভাবে, ইত্যাদি প্রশ্নের সাহায্যে সমস্যা ও সমাধানের পন্থা চিহ্নিত করত। বাংলাদেশের কিছু সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্ঠানে জাপানী সহায়তায় TQM চালু হয়েছিল এবং বহু সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী জাপানে গিয়ে প্রশিক্ষনও গ্রহন করেন। কথিত আছে যে, বুয়েটের মেধাবী ডিগ্রীধারী কোন ছাত্র কোন মাল্টিন্যাশনাল প্রতিষ্ঠানে চাকুরী না পেলেও…

Read More

অসংগতি রেখেই নূতন বেতন স্কেল বাস্তবায়ন

উপরোক্ত শিরোনামে সাবেক মন্ত্রী পরিষদ সচিব জনাব আলী ইমাম মজুমদার প্রথম আলোতে একটি সম্পাদকীয় লিখেছেন। তাঁহার লিখায় একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন বিষয় উঠে এসেছে। তিনি লিখেছেন-“…. চাকরির সূচনা স্তরে ক্যাডার পদের চেয়ে নন-ক্যাডারধারীদের একধাপ নিচে বেতন নির্ধারণের ব্যবস্থা হচ্ছে। নন-ক্যাডার পদে বিজ্ঞানী, প্রকৌশলী, প্রযুক্তিবিদসহ অনেক মেধাবী কর্মকর্তা আছেন। এ ধরনের সিদ্ধান্তের আবশ্যকতা ও এর প্রভাব ব্যাপকভাবে পর্যালোচনা করা হয়েছিল কি না, তা বোধগম্য নয়।” জনাব মজুমদার “প্রশাসন ক্যাডার”-এর একজন broadminded, দক্ষ, সৎ ও মেধাবী কর্মকর্তা। যিনি যত নীতিবানই হোন না কেন, তাঁহার মত সজ্জন ২-৪জন কর্মকর্তা ব্যতীত প্রশাসন ক্যাডার”-এর আর কোন…

Read More

স্বাধীনতা পেয়ে যা  হতে পারত

“স্বাধীনতা না পেলে কি হত” শিরোনামে শ্রদ্ধেয় আনিসুল হক একটি কলাম লিখেছেন প্রথম আলোতে। তিনি প্রথম আলোর সাংবাদিকও। তিনি প্রথিতযশা সাহিত্যিক ও আরও অনেক গুনের অধিকারী। তিনি আরও একটি বড় পরিচয় প্রকাশ করেননা, যা হল বুয়েট থেকে পাশ করা তিনি একজন প্রকৌশলী। তাঁহাদের আমলে সারা বাংলাদেশে কতজন ছাত্র HSC পরীক্ষা দিত এবং পাশ করত তা জানা নেই। ২০১৫সালে ১০লাখ HSC পরীক্ষার্থী হলে তাঁহাদের আমলে ন্যুনতম ৫লাখ ছাত্র HSC পরীক্ষা দিয়েছে এবং ২-৩লাখ ছাত্র পাশ করত। এই ২-৩লাখ ছাত্রের মধ্যে সর্বোচ্চ মেধাবী ২-৩হাজার ছাত্র মেডিক্যালে ও ১-১.৫হাজার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে চান্স পেত, যার…

Read More

সমশের মবিন চৌধুরীর পদত্যাগ ও যোগদান

সমশের মবিন চৌধুরী বিএনপি থেকে পদত্যাগ করেছেন, এজন্য প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়াসহ চায়ের কাপে আলোচনা সমালোচনার ঝড় উঠেছে। কিন্তু যখন তিনি বিএনপিতে যোগ দেন তখন ঝড় উঠেনি, যা উঠার কথা ছিল বা উচিৎ ছিল। মেধাবী ও চৌকষ ছাত্ররাই সেনাবাহিনীতে চান্স পায়। সমশের মবিন তাদেরই একজন। তিনি পররাস্ট্র সচিব হিসাবে অত্যন্ত মেধাবী ও সম্মানজনক পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন। যখন এসব পদে আসীন থাকেন, তখন সাধারন কোন সরকারী কর্মকর্তাতো দূরের কথা, কোন বিদেশী রাস্ট্রদূতও পূর্বানুমতি ব্যতীত তাহার সাথে(পররাস্ট্র সচিব)  সাক্ষাৎ করতে পারেননা। এসব পদে গোপনে, আড়ালে আবডালে দুর্নীতি আছে বা থাকতে পারে। তবে…

Read More

লাজ লজ্জা ও নৈতিক অবক্ষয়

বহুল প্রচারিত বাংলা দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের সম্পাদক ০৯-৩-২০১৬তাং ”বাঘের সামনে রাজনীতি ও সমাজ” শিরোনামে একটি বিশেষ সম্পাদকীয় লিখেন। পাদটীকায় তিনি যা লিখেন তার আংশিক এখানে উদ্ধৃত করা হল। ”ঘুষ, দুর্নীতি, সামাজিক অবক্ষয়, নৈতিক অবক্ষয় আগেও ছিল। এখনো আছে। কিন্তু এখন কেন এত ভয়াবহ। কেন বাড়ছে এর মাত্রা। আগে সবার মাঝে লাজ লজ্জা ছিল। এখন তাও নেই।  ….  … … মীর নাছিরের সময়ে কর্মকর্তার  চক্ষুলজ্জা ছিল। দরজা বন্ধ করেছিলেন। এখন এত রাখঢাক নেই। যার যা খুশী করছে। কেউ কাউকে মানেনা। কারও প্রতি কারও শ্রদ্ধা নেই। দয়ামায়া নেই। একটা ভয়ঙ্কর সময় পার…

Read More

লাওয়ারিশ নিম্ন আদালত, তুঘলকি কান্ড

[ইত্তেফাক-০৯ জুন ২০১৫-আইন কমিশনের অভিমত-বিচার বিভাগের ভঙ্গুর দশা।……….আইন কমিশন মনে করে, বিচারকের সংখ্যা বৃদ্ধি করলেই কেবল মামলার সংখ্যা কমবে না। কমিশন এ ব্যাপারে ১২ দফা করণীয় উপস্থাপন করেছে। মামলা নিষ্পত্তি পর্যবেক্ষণ করার জন্য একটি মনিটরিং সেল,………প্রথম আলো মতামত –সরল গরল–বিচারক নুরুল হুদা মডেল সংসদে আলোচিত হোক–মিজানুর রহমান খান | জুন ১৫, ২০১৫ | প্রিন্ট সংস্করণ ।………… এখন প্রধান বিচারপতির হতাশার কথা শুনে মনে হচ্ছে, এ বিষয়ে তেমন অগ্রগতি ঘটেনি। আগের মতোই অচলাবস্থা বিরাজ করছে।…………..কালের কন্ঠ -উপসম্পাদকীয়-১৬ জুন ২০১৫-বিচার বিভাগের বেহাল অবস্থা– এ এম এম শওকত আলী-কয়েক মাস ধরে বাংলাদেশের প্রধান…

Read More

রেলওয়ের ১০৬টি স্টেশন বন্ধ জনবল সংকটের কারনে

শতশত কোটি টাকার রেললাইন, অন্যান্য অবকাঠামো বিদ্যমান থাকা সত্বেও বছরে শুধুমাত্র ১২-১৩কোটি টাকা বেতনের জনবল সংকটের কারনে ১০৬টি স্টেশন বন্ধ। অথচ কয়েকগুন বেশী ব্যয়ে পদ্মা সেতুর উপর ৩৪,০০০কোটি টাকায় রেল লা্ইন করা হচ্ছে। ১০৬টি স্টেশন বন্ধের প্রধান কয়েকটি কারনের মধ্যে অন্যতম প্রধান কারনসমুহ হচ্ছে ব্যবস্থাপনার অভাব ও এখাতে দুর্নীতির সুযোগ কম। এখান থেকে প্রচুর অবৈধ অর্থ উপার্জন করা যাবেনা। সঠিক ব্যবস্থাপনা ও কম দুর্নীতির মাধ্যমে মাত্র কয়েকশত কোটি টাকা ব্যয় করে রেলওয়েকে দেশের ১৬কোটি লোকের সর্বোত্তম পরিবহন ব্যবস্থায় পরিনত করা এবং হাজার হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আয় সম্ভব। এ রাজস্ব…

Read More

১০ হাজার পিস ইয়াবার তথ্য গোপন করে জামিন-ক্ষমা চেয়ে ব্যারিস্টার খোকনের আবেদন।

আইনজীবীর ভুলে হেরে যান অনেক বিচারপ্রার্থী-এস কে সিনহা।-http://www.bd-pratidin.com/special/2015/05/17/81728- (বাংলাদেশ প্রতিদিন, ১৭-৫-২০১৫) …………….সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির মিলনায়তনে এক সেমিনারে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় বিচারকরা কতটা ভূমিকা নিতে পারবেন তা নির্ভর করে আইনজীবীদের ওপর। কিন্তু প্রায় ক্ষেত্রেই দেখা যায়, শুনানির সময় মামলার প্রধান বিষয়টি তারা স্পষ্ট করতে পারেন না। এই কারণে ৬০ থেকে ৭০ শতাংশ মামলায় হার হয়। আবার মামলা জটও দেখা দেয়। ‘আইনজীবীদের পাশাপাশি বিচারপতিরাও মামলা জটের জন্য দায়ী‘ –http://www.kalerkantho.com/home/printnews/222973/2015-05-17 –আইনজীবীদের পাশাপাশি বিচারপতিদের অদক্ষতার কারণে মামলা জট লাগে বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ…

Read More

রাস্ট্রের স্তম্ভ ও মানুষের মস্তিষ্ক।

ক্লাস সেভেনের ছাত্র আরিফের শারীরিক গঠন প্রায় টেন-ইলেভেন ছাত্রের মত এবং শক্ত-সুঠাম দেহ। বন্ধুদের কাছে পরে জানা যায় তার(আরিফ) মাথায় ক্রিকেট বলের আঘাত লাগে। ভয়ে মা-বাপের কাছে বলেনি। একসময় সে নিস্তেজ হয়ে যায়, স্বাভাবিক চলাফেরা কথাবার্তা বন্ধ হয়ে যায়। মেডিনোভা-এ্যাপোলো হসপিটালে নিয়েও বাঁচানো যায়নি। ওর মস্তিষ্কের একটি ক্ষুদ্র অংশ, প্রায় ৫% ড্যামেজ হয়ে গেছে। অলৌকিক বা কাকতালীয় বিষয় তার কিছুদিন পর আরিফের আপন ভাগ্নে ক্লাশ নাইনের ছাত্র হিরু মাথায় আঘাত পেয়ে মারা যায়। উভয়েরই শরীরে  আঘাত বা কোন ক্ষত ছিলনা। রক্তনালীতে চর্বি জমে তা ব্লক হয়ে যায়। এর ফলে হার্ট…

Read More

কমলগঞ্জে বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণে অনিয়ম।

একটি বহুল প্রচারিত জাতীয় দৈনিকে ০৭-১১-২০১৭ইং তারিখে উপরোক্ত শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদ থেকে দেখা যায় যে, মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জের একটি গ্রামে বিদ্যুতায়নে দুর্নীতির অভিযোগ। এরূপ অভিযোগ শুধু কমলগঞ্জেই নহে, বরং সারা বাংলাদেশে। এসব অভিযোগ শুধু অভিযোগই নহে, বরং সত্য, তা অন্যস্থানীয় জনৈক এমপি, অফিস খরচের নামে প্রকাশ্যে স্বীকারই করেছেন। এসব অফিস খরচ যে তার মত(এমপি) অন্যরাও পান তাতে আর সন্দেহ নেই। নূতন বিদ্যুতায়ন, বিশেষ করে পল্লী বিদ্যুতায়নের যখন পরিকল্পনা হয়, তখন পূরো উপজেলা, পূরো ইউনিয়ন একসাথে নাহোক, কোন গ্রাম হলে কোন বিশেষ বাড়ী বাদ দিয়ে হয়না, পূরো গ্রামের জন্যই পরিকল্পনা, নক্সা…

Read More