সততা-অসততার পার্থক্য।

প্রায় ৭বছর যাবৎ মামলার কাজে একই কোর্টের পরপর ৪জন জেলাজজকে সামনাসামনি তাদের বিচার কাজে দেখেছি। আরও কয়েকশত বিচারকের বিচারকাজ কয়েকশত দিন সামনাসামনি, একেকজনকে ধারাবাহিকভাবে ১৫-২০কার্য্যদিবস দেখেছি, যাদের মধ্যে শতাধিক জেলাজজ ও অতিরিক্ত জেলাজজ আছেন এবং অতিরিক্ত জেলাজজরা দায়রা বিচারে জেলাজজের সমান ক্ষমতাবান। তবে আজকের আলোচনা প্রথমোক্ত ৪(চার)জন জেলাজজকে নিয়েই।

১।এ ৪জনের প্রথমঃ-

(ক)২জন আর্থিকভাবে অসৎ ইহা ১০০% নিশ্চিত।

(খ)তাদের মারাত্মক দায়িত্ব-কর্তব্যে অবহেলা আছে। যেমন কাজ/এজলাস করার প্রচুর সময়, সুযোগ, প্রয়োজন থাকা সত্বেও তারা প্রতি কার্য্যদিবসে গড়ে ১(এক)ঘন্টাও এজলাস করেনি। দেশের আরও অনেক জেলাজজের তূলনায় মাসে/ বছরে অনেক কম সংখ্যক মামলা নিষ্পত্তি করেছে।

২।এ ৪জনের অপরঃ-

(ক)২জন আর্থিকভাবে অসৎ কিনা তা নিশ্চিত নহে। তাই তাদেরকে আর্থিকভাবে সৎ ধরে নিই।

(খ)তাদের মারাত্মক দায়িত্ব-কর্তব্যে অবহেলা আছে। যেমন কাজ/এজলাস করার প্রচুর সময়, সুযোগ, প্রয়োজন থাকা সত্বেও তারা প্রতি কার্য্যদিবসে গড়ে ১(এক) ঘন্টাও এজলাস করেনি। দেশের আরও অনেক জেলাজজের তূলনায় মাসে/বছরে অনেক কম সংখ্যক মামলা নিষ্পত্তি করেছে।

৩।উপরের ১ ও ২ এর (খ) থেকে পাইযে, আর্থিকভাবে সৎ ও অসৎ নির্বিশেষে ৪(চার)জন জেলাজজের-মারাত্মক দায়িত্ব-কর্তব্যে অবহেলা আছে। যেমন কাজ/এজলাস করার প্রচুর সময়, সুযোগ, প্রয়োজন থাকা সত্বেও তারা প্রতি কার্য্যদিবসে গড়ে ১(এক) ঘন্টাও এজলাস করেনি। দেশের আরও অনেক জেলাজজের তূলনায় মাসে/বছরে অনেক কম সংখ্যক মামলা নিষ্পত্তি করেছে।

আর্থিকভাবে সৎ ও অসৎ নির্বিশেষে ৪(চার)জন জেলাজজের মধ্যে মৌলিক পার্থক্য কি?

Related posts