রাস্ট্রের স্তম্ভ ও মানুষের মস্তিষ্ক।

ক্লাস সেভেনের ছাত্র আরিফের শারীরিক গঠন প্রায় টেন-ইলেভেন ছাত্রের মত এবং শক্ত-সুঠাম দেহ। বন্ধুদের কাছে পরে জানা যায় তার(আরিফ) মাথায় ক্রিকেট বলের আঘাত লাগে। ভয়ে মা-বাপের কাছে বলেনি। একসময় সে নিস্তেজ হয়ে যায়, স্বাভাবিক চলাফেরা কথাবার্তা বন্ধ হয়ে যায়। মেডিনোভা-এ্যাপোলো হসপিটালে নিয়েও বাঁচানো যায়নি। ওর মস্তিষ্কের একটি ক্ষুদ্র অংশ, প্রায় ৫% ড্যামেজ হয়ে গেছে। অলৌকিক বা কাকতালীয় বিষয় তার কিছুদিন পর আরিফের আপন ভাগ্নে ক্লাশ নাইনের ছাত্র হিরু মাথায় আঘাত পেয়ে মারা যায়। উভয়েরই শরীরে  আঘাত বা কোন ক্ষত ছিলনা। রক্তনালীতে চর্বি জমে তা ব্লক হয়ে যায়। এর ফলে হার্ট…

Read More

কমলগঞ্জে বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণে অনিয়ম।

একটি বহুল প্রচারিত জাতীয় দৈনিকে ০৭-১১-২০১৭ইং তারিখে উপরোক্ত শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদ থেকে দেখা যায় যে, মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জের একটি গ্রামে বিদ্যুতায়নে দুর্নীতির অভিযোগ। এরূপ অভিযোগ শুধু কমলগঞ্জেই নহে, বরং সারা বাংলাদেশে। এসব অভিযোগ শুধু অভিযোগই নহে, বরং সত্য, তা অন্যস্থানীয় জনৈক এমপি, অফিস খরচের নামে প্রকাশ্যে স্বীকারই করেছেন। এসব অফিস খরচ যে তার মত(এমপি) অন্যরাও পান তাতে আর সন্দেহ নেই। নূতন বিদ্যুতায়ন, বিশেষ করে পল্লী বিদ্যুতায়নের যখন পরিকল্পনা হয়, তখন পূরো উপজেলা, পূরো ইউনিয়ন একসাথে নাহোক, কোন গ্রাম হলে কোন বিশেষ বাড়ী বাদ দিয়ে হয়না, পূরো গ্রামের জন্যই পরিকল্পনা, নক্সা…

Read More

ঘুষ নেওয়ার সময় দুদকের হাতে ধরা ওয়াকফ প্রশাসনের সহকারী পরিচালক মোতাহার হোসেন খান।

অবৈধ কাজ পাপ। যখন সে অবৈধ কাজ বেশী হয়ে যায়, তাকে মহাপাপ বলে। কোন্  অবৈধ কাজ বেশী পাপ, কোন্ টা কম পাপ তা পরিমাপের কোন মাপকাঠি নেই। কমনসেন্স দ্বারা তা বুঝে নিতে হয়। বিষয়টি অনেকটা “কে ”কতগুন” বেশী মেধাবী, কে ”কতগুন” বেশী সৎ/অসৎ, কার কাজ ”কতগুন”  বেশী কঠিন, ……।- http://corruptionwatchbd.com/57-2/ “ এর মত। কারও সাথে অবৈধ যৌন সম্পর্ককে অবৈধ যৌনাচার বলে, যাহা মহাপাপ। কিন্তু সে অবৈধ যৌনাচার যদি এমন কোন আপন জনের সাথে হয়, যার সাথে ধর্মে বিবাহ সম্পর্ক নিষিদ্ধ করা হয়েছে, তখন সে যৌনাচারকে “অযাচার” বলে। এই অযাচার কি…

Read More

জেলা প্রশাসক বটে!

ঝিনাইদহের জেলা প্রশাসক জনাব জাকির হোসেন আকস্মিক পরিদর্শনে(surprise visit) গিয়ে বহু কর্মকর্তা-কর্মচারীকে অনুপস্থিত পান। এটা তিনি সংশ্লিষ্ট ডিপার্টমেন্টের জেলা পর্যায়ের/উর্ধতন কর্মকর্তাকে অবহিত করেন। অনুপস্থিত সবাইকে শোকজ করা হয়। এভাবে ইউএনও, জেলা/উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, এমপি সাহেবেরা আকস্মিক পরিদর্শন(surprise visit) করলে দেশের ও জনগনের অনেক উপকার/উন্নতি হত। শুধু অফিসের উপস্থিতি নহে, উন্নয়নমূলক কাজসহ কাবিখা, কাবিটা, ভিজিএফ, ইত্যাদি সঠিকভাবে হচ্ছে কিনা, তাহাও আকস্মিক পরিদর্শন(surprise visit) করতে পারেন। এতে রডের পরিবর্তে বাঁশ, পাথরের পরিবর্তে নিম্নমানের ইট, ইত্যাদি অনিয়ম চোখে পড়বে। দেশের প্রায় ৫৯%চিকিৎসক কর্মস্থলে যাননা, এটাও ধরা পড়বে।

Read More

সাংসদ কমলের নেতৃত্বে চালসহ ১০১ ট্রাক ত্রান বিতরন রোহিঙ্গা ক্যাম্পে।

  ১০১ট্রাক ত্রানের মূল্য প্রায় ৫(পাঁচ)কোটি টাকা। একটি নির্বাচনী এলাকার জনগন মিলে এ ত্রান দিচ্ছে। এর ১% অর্থাৎ ৫(পাঁচ) লাখ টাকা ব্যয় করে এলাকার বিদ্যুৎ লাইন মেরামত ও সংরক্ষন করলে, অন্ততঃ ১বছর তেমন বিদ্যুৎ বিভ্রাট ঘটবেনা।(বড় ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ ব্যতীত)। দ্রস্টব্যঃ- বিনা খরচে এবং অথবা স্বল্প খরচে সুষ্ঠ বিদ্যুৎ সরবরাহ-পর্ব-১,২–http://corruptionwatchbd.com/31-2/

Read More

রাজউকঃ সততা ও অসততার ফসল

আমাদের দৃষ্টিতে রাজউকের সাবেক চেয়ারম্যান প্রকৌশলী জনাব মুহম্মদ নুরুল হুদা এবং বর্তমান চেয়ারম্যান প্রকৌশলী জনাব মুহম্মদ জয়নাল আবেদীন ভূ্ঁইয়া (ইতিমধ্যে অবসরপ্রাপ্ত) উভয়েই সৎ। কিন্তু বসুন্ধরা ও যমুনা গ্রুপের মালীকানাধীন কয়েকটি পত্রিকায় যেভাবে প্রথম জনের(জনাব  হুদা) দুর্নীতির বিরুদ্ধে লেখালেখি করে, তাতে তাদের মতে তিনি(জনাব হুদা) চরম অসৎ তথা দুর্নীতিবাজ। জনাব হুদা আইন অনুসরন করে তার স্ত্রীর নামে একটি প্লট নিয়েছেন, যেটা অনিয়ম হতে পারে, দুর্নীতি নহে। অনিয়ম আর দুর্নীতি এক নহে। তার পরও ইহা যদি দুর্নীতি হয় তাহলে তার(জনাব  হুদা)  শাস্তি হওয়া উচিৎ। মাননীয় আদালত তা নির্ধারন করবেন। এটা ছাড়া রাজউক…

Read More

বিচারক, প্রশাসক ও দুদকের খাঁচা।

বনে জঙ্গলে মুক্তভাবে বাঘ সিংহ হাতি ঘুরে বেড়ায়, খাবারের সন্ধান করে। এটা তার স্বাভাবিক কাজ, নিত্যদিনের routine work. এ routine work-এর অংশ হিসাবে দুষ্ট শিকারির পাতা ফাঁদে(লতাপাতা দ্বারা আবৃত গর্ত, জাল, ইত্যাদি) সে পড়ে যায়। যখনই  সে আটক হয়ে খাঁচায় ঢোকে, তখন শিকারী বা খাঁচার মালীক ছাড়া পৃথিবীর আর কোন শক্তি নেই তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে। নির্দোষ হওয়া সত্বেও তার দোষ তার “দুর্ভাগ্য“। অপরদিকে অন্য বাঘ সিংহ হাতি জঙ্গলে মুক্তভাবে  ঘুরে বেড়ায়। তাদের গুন হচ্ছে তাদের “সৌভাগ্য”। অনুরূপভাবে দুর্ভাগা বাঘ সিংহ হাতির ন্যায় কেহ যদি বিচারক, প্রশাসক ও দুদকের…

Read More

বাঙ্গালীর আত্মপরিচয়, বিবর্তিত মূল্যবোধ, এবং ……….

প্রথিতযশা কয়েকজন লেখক, যাদের কেহ কেহ সাবেক ও বর্তমান পদস্থ সরকারী কর্মকর্তা, কলেজ অধ্যক্ষ, ব্যারিস্টার তাদের লিখা দেশের বহুল প্রচারিত জাতীয় দৈনিকের সম্পাদকীয়/উপসম্পাদকীয়তে ৩১-১২-২০১৫ তারিখে ছাপা হয়। তার কয়েকটি এরূপ-বাঙ্গালীর আত্মপরিচয়:আতাউর রহমান, রম্যলেখক৷ ডাক বিভাগের সাবেক মহাপরিচালক৷ বিবর্তিত মূল্যবোধ-অমিত রায় চৌধুরী: অধ্যক্ষ, ফকিরহাট ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা ডিগ্রি মহাবিদ্যালয়, বাগেরহাট।বিভ্রান্তির কীট পচন ধরিয়েছে আমাদের তথ্য সম্পদেঃ ড. সা’দত হুসাইন,  সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব।জনসংখ্যা বাড়ছে, কমছে মানুষ : ডক্টর তুহিন মালিক, সুপ্রিমকোর্টের আইনজ্ঞ ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ। ঘুষ দেব না, খাব না এবং ভোগান্তি:মোস্তাফিজুর রহমান, ব্রিসবেন (অস্ট্রেলিয়া) থেকে । বাঙ্গালীর আত্মপরিচয়ের, অবনমিত মূল্যবোধ জানতে…

Read More

বাংলাদেশের নিম্ন আদালতের সিংহভাগ বিচারক কাফের

জাতিধর্ম নির্বিশেষে পৃথিবীতে বিচারকের মর্যাদা সবার উপরে। পবিত্র কোরআন শরীফে বিচারকদেরকে বলা হয়েছে আল্লাহর ছায়া। পূর্ববর্তী পর্ব “ন্যায়বিচার ন্যায়ভিত্তিক সমাজের অনুষঙ্গ” , সংবিধান, বাংলাদেশ সুপ্রীমকোর্টের আদেশ  এবং প্রচলিত আইন মোতাবেক বাংলাদেশের নিম্ন আদালতের সিংহভাগ বিচারক কাফের। ধর্মকে বা আল্লাহকে বিশ্বাস করা কোন মানুষের ব্যক্তিগত ব্যাপার। কিন্তু কাফেরদের মধ্যেও তাদের সমাজে ন্যায়নীতি আছে। উন্নত বিশ্বের উন্নত ন্যায়নীতির দেশের প্রায় সকলেই কাফের(ইসলাম ধর্মানুসারে)। আড়াই হাজার বছর পূর্বের চানক্য বা তারও বহু পূর্ব হতে বিভিন্ন কায়দায় ঘুষ চালু আছে। এপ্রচলিত নেশায়(ঘুষ খাওয়া বা ইউরোপ আমেরিকা, মালয়েশিয়ার কায়দায় স্পীডমানি) আসক্ত হয়ে  কেহ ঘুষ খায়।…

Read More

প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় এবং ভ্যাট  

আমাদের দেশের কতিপয় ব্যক্তি ও সরকারী প্রতিষ্ঠানের, বিশেষ করে গৃহায়ন ও গনপূর্ত মন্ত্রণালয়, রাজউক, জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষ, REHAB, BLDA-এর কতিপয় ব্যক্তি ও কর্মকর্তার মনে হয় রাতে ঘুম হয়না এদেশের, বিশেষ করে ঢাকাবাসীর বাসস্থানের চিন্তায়। তাই তারা খাল বিল নদী নালা প্রাকৃতিক জলাশয়, জলাধার, পানি প্রবাহ, বন্যা প্রবাহ এলাকা নির্বিচারে ভরাট করে ফেলছে এবং তা করার জন্য প্রকাশ্য অনুমতি, নিরব সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে। যদি ১০% ভূমিও বাসস্থানের জন্য ব্যবহার করা হয়, তাহলেও আমরা দেখি যে, DAP তথা রাজউকের ১৫২৮ বর্গ কিলোমিটার এলাকায় প্রায় ৮(আট)কোটি লোকের বিলাসবহুলভাবে (with all amenities)বসবাস সম্ভব। এবং…

Read More