যমুনা গ্রুপ: প্রয়োজন কি? অসুবিধা কি? কারন কি?

যমুনা গ্রুপের নীট কত টাকা আছে তা আমরা জানিনা। তবে বাহির থেকে যে পরিমান সম্পদ দেখি বা দেখা যায় তাতে বর্তমান বাজারমূল্যে কয়েক হাজার কোটি টাকার সম্পদ আছে বলে নিশ্চিত বলা যায়। যদি তাই থাকে তাহলে, “নানা কৌশলে, সুকৌশলে, কুটকৌশলে, অপকৌশলে, ২-৪-৬ বা ততোধিক আইন অমান্য করে টাকা রোজগার করার প্রয়োজন কি?  আর টাকা রোজগার করতে না পারলে অসুবিধা কি?  এত অনিয়ম করে টাকা রোজগার করার কারন কি?”  এসব প্রশ্নের কোন যুক্তিসঙ্গত উত্তর নাই। যমুনা ফিউচার পার্ক ও কমপ্লেক্সের অভ্যন্তরে যেসব স্থাপনা ইতিমধ্যে নির্মিত হয়েছে তাতেই Dhaka mohanagar building construction…

Read More

এসএ গ্রুপ(এসএ পরিবহন, এসএ টিভি, ইত্যাদি)

এসএ গ্রুপের কর্নধার জনাব সালাহউদ্দীন আহমদ। তিনি কতশতকোটি বা হাজার কোটি টাকার মালীক আমরা জানিনা। তবে বাহ্যিকভাবে নিশ্চিত যে তিনি একজন ধনী ব্যবসায়ী। তিনি একজন রাজনীতিকও। ঢাকা শহরের কাকরাইল মোড়ে তাহার বিরাট পরিবহন(পার্শ্বেল/কুরিয়ার) ব্যবসা আছে।এখানে, একটু উত্তরে, শান্তিনগর বাজার সংলগ্ন তার(এসএ গ্রুপের) অনেক ভূ-সম্পত্তি আছে, যা প্রায় খালি পড়ে আছে। এই ভূ-সম্পত্তি খালি পড়ে থাকা সত্বেও তিনি কাকরাইল মোড়ে প্রায় প্রতিদিন কয়েকডজন গাড়ীতে ২-৩সারি করে সরকারী রাস্তার অর্ধেক বা এক তৃতীয়াংশ দখল করে প্রায় সারাদিন মালামাল লোড-আনলোড করান। একাজটি তিনি তাঁর খালি পড়ে থাকা ভূমিতে করাতে পারেন। অত্র এলাকার(কাকরাইল মোড়)…

Read More

বাসস্থান এবং বাসস্থান নির্মানের ভূমি

অনেকের মধ্যেই একটি সাধারন ধারনা যে, ঢাকায় বাসস্থান নির্মানের ভূমির অভাব। অনেকেই বাসস্থান ও বাসস্থান নির্মানের ভূমির অভাবকে এক করে ফেলেন। ঢাকায় বাসস্থানের অভাব সত্য, কিন্তু বাসস্থান নির্মানের ভূমির অভাব নাই। DAP তথা রাজউকের ১৫২৮ বর্গ কিলোমিটার এলাকার বর্তমান ঢাকা সিটির প্রায় ৩০০ বর্গ কিলোমিটার এলাকা(ধরি ৩২৮ বর্গ কিলোমিটার ) এলাকা বাদ দিলে অবশিষ্ট ১২০০ বর্গ কিলোমিটার ভূমির ১০% ভূমি বাসস্থানের জন্য ব্যবহার করলে রাস্তা-ঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সরকারী-বেসরকারী দপ্তর, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান/উপাসনালয়, খেলার মাঠসহ সকল ওপেন স্পেস, ইত্যাদি সবকিছু নির্মানের জন্য প্রয়োজনীয় ভূমি রেখে এবং নীচু, জলাভূমি, কৃষিজমি, ফিশারীজ, প্রাকৃতিক জলাধার, …

Read More

রাজউক ও ছিটমহল এবং ….।

আ..র ভাই  বুয়েটের মেধাবী ছাত্র, প্রথম শ্রেনীর সরকারী কর্মকর্তা হিসাবে অবসরপ্রাপ্ত। দেশের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন প্রতিষ্ঠানের সচিব মর্যাদার মহাপরিচালক ছিলেন। তিনি (আ..র ভাই) দৈনিক কয়েকহাজার টাকার শুধু  সিগারেট ও মদ পান করতেন। ঢাকা ক্লাব, চট্টগ্রাম ক্লাবসহ শীর্ষস্থানীয় হোটেল-ক্লাবের সদস্য। স্বাভাবিক অবস্থায় তিনি অত্যন্ত জ্ঞান ও বুদ্ধিদীপ্ত কাজ করতেন, কথা বলতেন। যখন মাতাল হয়ে যেতেন, তখন তার সকল জ্ঞান-বুদ্ধি, ভদ্রতা-নম্রতা লোপ পেত। তাস খেলার সময় মনে হত তাহার মত ভাল খেলোয়াড় আর নেই। মাতাল অবস্থায় মনে হত তাহার মত খারাপ খেলোয়াড় আর নেই। কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে যখন পড়ি, তখন প্রথম “ছিটমহল” সম্পর্কে জানতে…

Read More

দেশের ৬৪ হাজার প্রাইমারী  স্কুলের মধ্যে ৩০ হাজারই অবকাঠামো সমস্যায় রয়েছে, জরাজীর্ণ ১০ হাজার।

প্রাথমিকভাবে বা একসাথে প্রায় দেড়লাখ কোটি টাকা ব্যয়ে ২৪০০মেগাওয়াট পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মান না করে সর্বোচ্চ ২৫-৩০হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে তা করলে প্রায় সোয়া লক্ষ কোটি টাকা বেঁচে যেত। অথবা দেড়লাখ কোটি টাকা ব্যয়ে সাধারন বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মান করলে ২৪০০মেগাওয়াটের অন্ততঃ কয়েকগুন বেশী ক্ষমতার বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মান করা যেত। উভয় ক্ষেত্রেই বহুবিধ লাভ ছিল বা হত। যে জ্বালানী দিয়েই বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মান করা হোকনা কেন, ২৪০০মেগাওয়াট সবসময় ২৪০০মেগাওয়াটেরই কাজ করবে। ২৪০০মেগাওয়াটের পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের টাকায় যদি প্রচলিত দরে ন্যুনতম ১৫০০০মেগাওয়াটের সাধারন বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মান করলে জাতীয় উৎপাদন বহু বহু গুন বাড়ত। দেড়লাখ কোটি টাকায়…

Read More

www.Corruptionwatchbd.com-এর হ্যাক হওয়া এবং….।

মহান আল্লাহ, মহানবী হযরত মুহম্মদ(সঃ), বাংলাদেশের মহান স্থপতি বঙ্গবনধু শেখ মুজিবুর রহমান, জীবিত ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধাসহ জাতিধর্মনির্বিশেষে সম্মান পাওয়ারযোগ্য পৃথিবীর সকলকে আমরা তাঁহাদের প্রাপ্যতা মোতাবেক সমানভাবে ভালবাসি ও শ্রদ্ধা করি। ডিসেম্বর-২০১৫-এ আমাদের ওয়েবসাইটটির যাত্রা শুরু হলেও ইতিমধ্যে প্রস্তুতকৃত কয়েকশত প্রবন্ধ/রিপোর্টের মধ্যে মাত্র ১০৪টি প্রবন্ধ/রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়। এগুলো প্রকাশের একমাসের মধ্যে প্রথম আমাদের সাইটটি হ্যাক হয় ও ২টি লিখা মুছে ফেলা হয়। এর কয়েক দিন পর আবারও কয়েকবার হ্যাক হয়। কিন্তু সবসময়ই সাইটটি অক্ষত থাকে। ০২-০৩ আগস্ট,২০১৬ সাইটটি টোট্যালী ড্যামেজ করা হয়। আমরা কোন ব্যক্তি, কোন ধর্ম, দল বা রাস্ট্রের…

Read More

৭২ শতাংশ মেয়র প্রার্থী ব্যবসায়ী

সুশাসনের জন্য নাগরিক(সুজন)-এর তথ্যমতে মেয়র প্রার্থীদের ৭২শতাংশই ব্যবসায়ী। বর্তমান প্রেক্ষাপটে ১০০%ই ব্যবসায়ী। কেননা মেয়রদের সবসময় ঘুষ চাইতে হয়না। পারিবারিক কলহ, বিবাহ বিচ্ছেদের রায়, ধর্ষনের বিচার, চাকুরীর নিয়োগ তদবীর, এলাকার অধিবাসী পিয়ন থেকে শুরু করে সচিবের বদলী-পদোন্নতি-বাসা বরাদ্ধসহ হেন কোন কাজ নেই যা মেয়র-কমিশনার-কাউন্সিলররা করেননা। সেবা প্রার্থীরাই নিজেদের স্বার্থে তাদেরকে(মেয়র-কমিশনার-কাউন্সিলর) অর্থ প্রদান করে। এ অর্থের পরিমান তাদের কারও কারও(মেয়র-কমিশনার-কাউন্সিলর) বছরে বহু লাখ থেকে বহু কোটি টাকা পর্যন্ত। তাই এখন বলতে হবে মেয়র প্রার্থীদের ২৮%শতাংশই রাজনীতিবিদ বা অন্য কেহ।

Read More

৩৫,০০০(পঁয়ত্রিশ হাজার) মেগাওয়াটের টাকায় ২৪০০ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎ কেন্দ্র করা হচ্ছে কেন?

মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন কর্মকান্ড অত্যন্ত প্রশংসার দাবীদার। তারই অংশ হিসাবে তিনি বিদ্যুৎ সেক্টরে অধিকতর গুরুত্ব দিচ্ছেন। কিন্তু রুপপুরে ২৪০০ মেগাওয়াটের পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র করা হচ্ছে ১,০০,০০০কোটি টাকায়। প্রাথমিক ও আনুসঙ্গিক ব্যয়সহ প্রায় ১,১০,০০০ কোটি টাকা। বড় পুকুরিয়া কয়লা বিদ্যুতে প্রতি মেগাওয়াটের নির্মান ব্যয় ১০কোটি টাকা, রামপালে প্রায় ৯ কোটি টাকা, পায়রায় প্রায় ৯.৫কোটি টাকা। কয়লা বিদ্যুতে প্রতি মেগাওয়াটের নির্মান ব্যয় সর্বোচ্চ ১০কোটি টাকা ধরলে এবং রুপপুরে ২৪০০ মেগাওয়াটের পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মানে যদি ধরে নিই যে, ব্যয় ও সময় বৃদ্ধি পাবেনা, তাহলে এর নির্মান ব্যয় দ্বারা আরও কম সময়ে…

Read More

দেশে শিশু শ্রমিক সাড়ে ৩৪ লাখ

বাংলাদেশ শ্রম আইন-২০০৬ এবং আন্তর্জাতিক শ্রমসংস্থার (আইএলও) গাইডলাইন অনুযায়ী পরিচালিত বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) শিশুশ্রম জরিপ থেকে জানা গেছে, দেশের মোট শিশুর সংখ্যা তিন কোটি ৯৬ লাখ। এর মধ্যে সাড়ে ৩৪ লাখ শিশুশ্রমিক। বিবিএসের পরিচালক সুব্রত ঘোষ সমকালকে বলেন, প্রায় দশ বছর পর আইএলওর গাইডলাইন অনুযায়ী শিশুশ্রম জরিপটি করা হয়েছে। জরিপের প্রতিবেদনও চূড়ান্ত করা হয়েছে। পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন চলতি মাসের শেষ সপ্তাহেই আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করা হবে। অস্বাভাবিক অতিরিক্ত জনসংখ্যাই অমানবিক, নির্মম, নিষঠুর  শিশুশ্রমের কারন। আয়তনে বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৫৪গুন বড় অস্ট্রেলিয়ার মোট জনসংখ্যা প্রায় আড়াই কোটি।

Read More

২২ হাজার মিটার রিডার ও মেসেঞ্জারকে স্থায়ী করার দাবি

২২ হাজার মিটার রিডার ও মেসেঞ্জারকে স্থায়ী করার দাবি বিদ্যুতের মিটার রিডার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ন পদ। কাজের ধরনের কারনে এদের কেহ কেহ দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ে। তবে দেশের তথা বিদ্যুৎ বিভাগের রাজস্ব আহরন, সিস্টেমলস কমানো, গ্রাহকের সাথে বৈধ সুসম্পর্ক বজায় রেখে ডিপার্টমেন্টের ভাবমুর্তি উজ্বল, ইত্যাদিতে এদের ভূমিকা বিশাল। কিন্তু এ পদটির কাজ চালানো হয় অস্থায়ী কর্মচারী দ্বারা। অস্থায়ী কর্মচারীর সুবিধা হচ্ছে, এরা সিবিএ বা শ্রমিক সংগঠন করতে পারেনা। স্থায়ী করার সাথে সাথে এদের দৌরাত্ম এত বেড়ে যায় যে, কিছুদিন আগেও এরা যে অসহায় ছিল, তা ভূলে যায়। আর এজন্য দায়ী বর্তমান সিবিএ…

Read More