বাঁচতে হলে  জানতে হবেঃ মাদক নিয়ন্ত্রন, দুর্নীতি দমন এবং ….

ওয়ারেন বাফেট-তাঁহার নিজের ও অন্যদের সফলতার জন্য লেখাপড়ার উপর গুরুত্বারোপ করেছেন। এমনকি দৈনিক ৫০০পৃষ্ঠা পড়ারও পরামর্শ দিয়েছেন। আমরা ইতিপূর্বে “বাঁচতে হলে  জানতে হবে” ধরনের কতিপয় প্রবন্ধ প্রকাশ করেছি।(এরূপ কয়েকশত প্রবন্ধ প্রকাশের তালীকায় আছে)। যেকোন বিষয়ে সফলতা অর্জন করতে হলে অবশ্যই তার সম্পর্কে বিশদভাবে জানতে হবে। মাদক নিয়ন্ত্রন, দুর্নীতি দমনের কাজেও এগুলো সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে হবে। মাদকের বিষয়ে এমুহুর্তে আমরা বিস্তারিত বলছিনা। ২০(বিশ) বছরের স্থায়িত্বের মেয়াদে রেট সিডিউলের(দর তালীকা) কয়েকগুন বেশী টাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ৪লেন প্রায় ৪(চার) হাজার কোটি টাকায় নির্মানের পর ১-২বছরের মধ্যেই ভাঙ্গন-গর্ত দেখা দেয়। দুর্নীতির কারন ছাড়া বন্যায়…

Read More

চিঠি নং-২: মিউটেসন/নামজারী/জমাভাগ/বাদখারিজ সংক্রান্ত।

তহশিল/এসিল্যান্ড অফিসের দুর্নীতি দমন করে দেশের কোটি কোটি মানুষকে হয়রানী ও ঘুষ-দুর্নীতির হাত থেকে বাঁচাতে হলে আগে জানতে হবে মিউটেসন, নামজারী, জমাভাগ, বাদখারিজ, ইত্যাদি কি?  এগুলো হলো সম্পত্তির মালীকানার রেকর্ড হালনাগাদকরন, একাধিক অংশীদার হলে নিজের অংশটুকু অন্যদের কাছ থেকে পৃথক করে রেকর্ড হালনাগাদকরন, ইত্যাদি। ক্রয়, দান, হেবা, উইল, ইত্যাদির মাধ্যমে সম্পত্তির(ভূমি/প্লট, ফ্ল্যাট, ইত্যাদি) মালীকানা পরিবর্তনের জন্য সাবরেজিস্ট্রি অফিসে দলিল রেজিস্ট্রি করা হয়। এতে বর্তমান হারে কয়েক হাজার থেকে কয়েক লাখ বা তারও বেশী টাকা সরকারী রাজস্ব দিতে হয়। মালীকানা পরিবর্তনের জন্য এটাই(সাবরেজিস্ট্রি অফিসে দলিল রেজিস্ট্রিকরন) সর্বোচ্চ গুরুত্বপূর্ন কাজ। একাজে বিক্রেতার/দাতার…

Read More

সর্বজনাব তানজিম আহমেদ সোহেল তাজ ও মাহমুদুর রহমান মান্নার প্রতি কতিপয় খোলা চিঠি। চিঠি নং-১।

জনাব, আসসালামু আলাইকুম। আপনাদের সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ূ ও সফলতা কামনা করি। আপনাদেরকে ধন্যবাদ জানাই যে, আপনারা মাদক, দুর্নীতির বিরুদ্ধে কাজ করবেন বলে পত্র-পত্রিকা-ফেসবুকের মাধ্যমে জানা যায়। এজন্য আপনাদেরকে স্বাগতম ও ধন্যবাদ। প্রথমে দুর্নীতির কথা ধরা যাক। দুর্নীতির বিরুদ্ধে কাজ করতে হলে এর সংজ্ঞা ও স্বরূপ জানতে হবে, বুঝতে হবে। আপনারা কতটুকু জানেন বা বুঝেন তা আমরা জানিনা। বছরে এত হাজার/লাখ কোটি টাকা পাচার হচ্ছে, বা দুর্নীতির সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান এত নীচে বা উপরে বা অমুকে বা অমুক অফিসে বা প্রতিষ্ঠানে এত দুর্নীতি করছে বা হচ্ছে বা প্রতিদিন কয়েক লাখ সংখ্যক দুর্নীতির…

Read More

ভালোভাবে বাঁচতে হলে জানতে হবে-১ঃসড়ক ও সেতুর ভাঙ্গন।

১।নোয়াখালী জেলার কবিরহাট উপজেলার কালামিয়ার পোল-ভূঁইয়ার হাট সড়ক। ২। রাজবাড়ী জেলার গোয়ালন্দ উপজেলার পদ্মার মোড় বাঁক এলাকার সড়ক, যা নির্মানের ৪(চার) মাসেই কয়েক যায়গায় এভাবে ধ্বসে যায়। ৩।কুমিল্লা জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ৬নং ঘোলপাশা ইউনিয়নের শলাকান্দি গ্রামের শলাকান্দি-তিনপাড়া রাস্তার মাথার রাস্তার ভাঙ্গনের ভিডিও।- https://www.youtube.com/watch?v=1jUzewhk-6g ৪। টাঙ্গাইল জেলার বাসাইল উপজেলায় ফুলকি ইউনিয়নের ফুলকি-ফুলবাড়ি সড়কে নির্মিত সেতুটি  উদ্বোধনের আগেই হেলে পড়েছে। এরূপ কয়েক লাখ ঘটনা আছে যেগুলোতে প্রকৌশলী ও ঠিকাদাররা অতিবৃষ্টি ও বন্যার দোহাই দিচ্ছে, যা ৯৯% মিথ্যা। কেননা অতিবৃষ্টি ও বন্যায় পূরো রাস্তাই বা সেতুই ধ্বসে বা ভেঙ্গে যেত। বৃষ্টির ফোঁটার চাপ…

Read More

বাঁচতে হলে জানতে হবে।

এইডস একটি দুরারোগ্য ব্যাধি। এটার উৎপত্তি কিভাবে, এর প্রতিরোধ বা আরোগ্য কিভাবে এটা অনেকেই জানেনা। এর সচেতনতা সৃষ্টির জন্য আমাদের দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ শিরোনামোক্ত(বাঁচতে হলে জানতে হবে) শ্লোগানটি বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রচার করে। এটার বিষয়ে আমরা বেশী লিখবনা।  আমরা শুধু এটুকু বলতে চাই যে, এক প্যাকেট ওরস্যালাইনে যেমন মানুষের জীবন বাঁচাতে পারে, তেমনি সামান্য সচেতনতায় বা জ্ঞান দ্বারা এইডসের মত রোগ থেকে দুরে থাকা যায়। (জীবন মরনের মালীক মহান সৃষ্টিকর্তা, এটা স্বীকার করেই আমরা এটা লিখছি)। দুর্নীতি আমাদের দেশে মরনব্যাধি ক্যান্সার ও এইডসের রূপ ধারন করেছে। কিন্তু দুর্নীতি কি এটাই আমরা…

Read More

দুর্নীতিবাজ, নিষ্ঠুর সিজোফ্রেনিক এবং নার্সিসিস্ট

  ক।২৬ অক্টোবর ২০১৪-নিষ্ঠুর সিজোফ্রেনিয়া – প্রয়োজন পারিবারিক সচেতনতা। খ।-১১ অক্টোবর ২০১৪-২ কোটি ৬০ লাখ মানুষ এ রোগে ভুগছে ; সিজোফ্রেনিয়া নিয়ে বাঁচতে শিখি ।- ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আজিজুল ইসলাম। গ।জানুয়ারি ১২, ২০১৫, সোমবার : পৌষ ২৯, ১৪২১ রাজনৈতিক দলের চিন্তাচেতনায় নারসিসিজমের বৈশিষ্ট্য ………………………..তাই মনোবিজ্ঞানে মানব চরিত্রের এ বৈশিষ্ট্যকে Narcissism নামে আখ্যায়িত করা হয়। যার অর্থ হল আপন মোহে মুগ্ধ ও অপরের প্রতি সহমর্মিতার অভাব থাকা। অনেকটা স্বার্থপরের কাছাকাছি। এ চরিত্রের মানুষরা একান্ত আত্মকেন্দ্রিক হয়ে থাকে। অপরের প্রতি কোনো শ্রদ্ধা–সম্মান প্রদর্শন করে না। অন্যের মতামতের কোনো মূল্যায়ন করে না। শুধু…

Read More

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল জিম্মি ঠিকাদারদের হাতে-চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহ ও মেরামতে গড়িমসি।

বহুল প্রচারিত জাতীয় পত্রিকা দৈনিক ইত্তেফাকে উপরোক্ত শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়।(http://www.ittefaq.com.bd/print-edition/last-page/2017/11/05/234233.html )। ‘কোবাল্ট সিক্সটি’, ‘ব্র্যাকিথেরাপি মেশিন’, ‘সোর্স’, ‘ওয়ার্ক স্টেশন’ ইত্যাদি হয়ত নষ্ট, নতুবা নূতন আনা হয়েছে কয়েকগুন বেশী টাকা দিয়ে, দুর্নীতির জটিলতায় নূতনগুলো স্থাপন না করে অথবা চালু না করে বছরের পর বছর খোলা আকাশের নীচে অযত্নে অবহেলায় ফেলে রাখা হয়েছ। এরূপ একটি মেশিন স্থাপন করা বিদ্যুতের ৩৩/১১কেভি ইনডোর/আউটডোর উপকেন্দ্র স্থাপনের তূলনায় অতি ক্ষুদ্র। বিল্ডিং বা কাঠামো তৈরী থাকলে বিদ্যুতের ৩৩/১১কেভি ইনডোর/আউটডোর উপকেন্দ্র স্থাপন ২/১দিনের ব্যাপার মাত্র। অযোগ্যতা, অদক্ষতা, অব্যবস্থাপনা সর্বোপরি দুর্নীতির দরুন কিভাবে ক্যান্সারের রোগীর মত মানুষের জীবন বিপন্ন…

Read More

কমলগঞ্জে বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণে অনিয়ম।

একটি বহুল প্রচারিত জাতীয় দৈনিকে ০৭-১১-২০১৭ইং তারিখে উপরোক্ত শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদ থেকে দেখা যায় যে, মৌলভীবাজার জেলার কমলগঞ্জের একটি গ্রামে বিদ্যুতায়নে দুর্নীতির অভিযোগ। এরূপ অভিযোগ শুধু কমলগঞ্জেই নহে, বরং সারা বাংলাদেশে। এসব অভিযোগ শুধু অভিযোগই নহে, বরং সত্য, তা অন্যস্থানীয় জনৈক এমপি, অফিস খরচের নামে প্রকাশ্যে স্বীকারই করেছেন। এসব অফিস খরচ যে তার মত(এমপি) অন্যরাও পান তাতে আর সন্দেহ নেই। নূতন বিদ্যুতায়ন, বিশেষ করে পল্লী বিদ্যুতায়নের যখন পরিকল্পনা হয়, তখন পূরো উপজেলা, পূরো ইউনিয়ন একসাথে নাহোক, কোন গ্রাম হলে কোন বিশেষ বাড়ী বাদ দিয়ে হয়না, পূরো গ্রামের জন্যই পরিকল্পনা, নক্সা…

Read More

ঘুষ নেওয়ার সময় দুদকের হাতে ধরা ওয়াকফ প্রশাসনের সহকারী পরিচালক মোতাহার হোসেন খান।

অবৈধ কাজ পাপ। যখন সে অবৈধ কাজ বেশী হয়ে যায়, তাকে মহাপাপ বলে। কোন্  অবৈধ কাজ বেশী পাপ, কোন্ টা কম পাপ তা পরিমাপের কোন মাপকাঠি নেই। কমনসেন্স দ্বারা তা বুঝে নিতে হয়। বিষয়টি অনেকটা “কে ”কতগুন” বেশী মেধাবী, কে ”কতগুন” বেশী সৎ/অসৎ, কার কাজ ”কতগুন”  বেশী কঠিন, ……।- http://corruptionwatchbd.com/57-2/ “ এর মত। কারও সাথে অবৈধ যৌন সম্পর্ককে অবৈধ যৌনাচার বলে, যাহা মহাপাপ। কিন্তু সে অবৈধ যৌনাচার যদি এমন কোন আপন জনের সাথে হয়, যার সাথে ধর্মে বিবাহ সম্পর্ক নিষিদ্ধ করা হয়েছে, তখন সে যৌনাচারকে “অযাচার” বলে। এই অযাচার কি…

Read More

বিচারক, প্রশাসক ও দুদকের খাঁচা।

বনে জঙ্গলে মুক্তভাবে বাঘ সিংহ হাতি ঘুরে বেড়ায়, খাবারের সন্ধান করে। এটা তার স্বাভাবিক কাজ, নিত্যদিনের routine work. এ routine work-এর অংশ হিসাবে দুষ্ট শিকারির পাতা ফাঁদে(লতাপাতা দ্বারা আবৃত গর্ত, জাল, ইত্যাদি) সে পড়ে যায়। যখনই  সে আটক হয়ে খাঁচায় ঢোকে, তখন শিকারী বা খাঁচার মালীক ছাড়া পৃথিবীর আর কোন শক্তি নেই তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে। নির্দোষ হওয়া সত্বেও তার দোষ তার “দুর্ভাগ্য“। অপরদিকে অন্য বাঘ সিংহ হাতি জঙ্গলে মুক্তভাবে  ঘুরে বেড়ায়। তাদের গুন হচ্ছে তাদের “সৌভাগ্য”। অনুরূপভাবে দুর্ভাগা বাঘ সিংহ হাতির ন্যায় কেহ যদি বিচারক, প্রশাসক ও দুদকের…

Read More
1 2 3 4