বাংলাদেশের জন্মদাতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও আত্মস্বীকৃত খুনীরা।

বাংলাদেশের জন্ম বা স্বাধীনতার ঘটনা যেভাবেই ঘটুকনা কেন, যদি কেহ বাংলাদেশকে স্বীকার করে, বাংলাদেশের জন্ম বা স্বাধীনতাকে স্বীকার করে, নিজেকে স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিক হিসাবে স্বীকার করে, তাহলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান না হলে যে বাংলাদেশের জন্ম বা স্বাধীনতার ঘটনা ঘটতনা ইহাও স্বীকার করতে হবে। কোন মানুষের জন্মের আগে পরে বিশাল কর্মযজ্ঞ থাকে, যার সাথে জন্মগ্রহনকারীর এমনকি জন্মদাতার সংশ্লিষ্টতা বা ভূমিকা থাকেনা। যেমন বিয়ের আয়োজন, পরে সন্তানের লালন পালনে কয়েকশত বা হাজার আত্মীয়-স্বজনের সংশ্লিষ্টতা বা ভূমিকা থাকে। বাংলাদেশের জন্মে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সরাসরি প্রায় ২যুগের ভূমিকা ছিল। তাঁহাকে বঙ্গবন্ধু বা…

Read More

বঙ্গবনধুর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীত্ব এবং বাকশাল।

বিএনপিসহ অনেকেই সমালোচনার সূরে বলে যে, শেখ মুজিবতো স্বাধীনতা চাননি, পাকিস্তানের(পূর্ব ও পশ্চিম) প্রধান মন্ত্রীত্ব চেয়েছিলেন। বাকশাল গঠন নিয়েও অনেকে সমালোচনা করে। কিন্তু বঙ্গবনধুর পাকিস্তানের(পূর্ব ও পশ্চিম) প্রধান মন্ত্রী হওয়া ও বাকশাল গঠনের পক্ষে যে অনেক অনেক বেশী যুক্তি ও বাস্তবতা আছে বা ছিল তা আওয়ামী লীগের কাউকেই বলতে শুনিনি। বরং আওয়ামী লীগের অনেক নেতাকেই এদুটি প্রসঙ্গে বিব্রতবোধ করতে দেখেছি। ১৯৭০এ আওয়ামীগের নির্বাচনী manifesto-তে পূর্বপাকিস্তানের তথা বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংক্রান্ত সরাসরি কোন বিষয় ছিলনা। নিরংকুষ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া বা ১০০%আসন পেলেও সংসদ অধিবেশন বা সরকার গঠন ছাড়া আইনগতভাবে আর কিছুই করার ছিলনা।…

Read More

বঙ্গবন্ধু, জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষনা ও কুমারী পূজা।

হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা(তাঁহাদের প্রতি সম্মান রেখে বলছি) কুমারী পূজা দিয়ে থাকেন। একজন মেয়েকে কুমারী সাজিয়ে(নিশ্চয়ই সে মেয়ে কুমারী)এ পূজা করা হয়। এ পূজার আয়োজকদের অনেক কাজ করতে হয়। মেয়েটি শুধু আয়োজকদের ইচ্ছা পূরন করে থাকে, এছাড়া তার আর কোন কাজ নেই। মেয়েটির বয়স এমন যে, অনেক মেয়ে হয়ত “কুমারী” এবং “কুমারী পূজা” কি ইহাই জানেনা। ১৯৪৮সাল বা তার পূর্ব হতে ১৯৭০সালের নির্বাচন পর্যন্ত বিশাল রাজনৈতিক কর্মকান্ডের ফসল ১৯৭১-এর স্বাধীনতা ঘোষনা। প্রেক্ষাপট এমনভাবে তৈরী হয় যে, বঙ্গবন্ধুর পক্ষে কাউকে না কাউকে স্বাধীনতার আনুষ্ঠানিক ঘোষনা দিতে হবে। আয়োজকরা উপস্থিত ক্ষেত্রে জিয়াউর রহমানকে পেয়েছেন,…

Read More

২১শে আগস্টের গ্রেনেড হামলা,আওয়ামী লীগের ভোটের রেকর্ড এবং ..

** বহুল প্রচারিত প্রথম আলোর প্রথম পৃষ্ঠার ০৬–০১–২০১৬তারিখের একটি সংবাদ ও শিরোনাম ছিল এরূপঃ-“পৌরসভা নির্বাচনের ফল বিশ্লেষন–আ.লীগের ভোটের রেকর্ডে বিশ্লেষকেরা বিস্মিত”। ভোটের রেকর্ড বিশ্লেষনের পূর্বে আমরা কিছু রেকর্ড বিশ্লেষন করি। ২১শে আগস্ট ২০০৪সালে গ্রেনেড হামলায় জিয়া পরিবার জড়িত ছিল কি ছিলনা ইহা বিতর্কিত বিষয়। পৃথিবীর অনেক সত্য ঘটনা শতভাগ প্রমান করা যায়না। তাই জিয়া পরিবারের সংশ্লিষ্টতাও শতভাগ প্রমান করা কঠিন। তবে বিএনপি পরিবার যে ২১শে আগস্ট ২০০৪সালের গ্রেনেড হামলায় জড়িত ছিল ইহা সত্য। তৎকালীন সরকার ছিল বিএনপির এবং হাওয়া ভবনের, যার নেতৃত্বে ছিল জিয়া পরিবার। “জজ মিয়া” নাটক যদি সত্যও…

Read More

বাংলাদেশের কেজরিওয়াল।

বাংলাদেশেও কেজরিওয়াল  বা তার চেয়েও বেশী যোগ্যতা সম্পন্ন লোক আছে বা থাকতে পারে। কিন্তু ভারতে একজনের ‘কেজরিওয়াল’ হয়ে ওঠা যত সহজ, বাংলাদেশে তত সহজ নহে। ভারত এখনও বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম ‘গনতান্ত্রিক’ দেশ। সর্বোপরি সে দেশের বিচারবিভাগ, প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশন অত্যন্ত নিরপেক্ষ ও শক্তিশালী। কেজরিওয়ালের অন্যান্য গুনাবলীর সাথে এই ‘গনতন্ত্র’ তাকে  ‘কেজরিওয়াল’ হতে সাহায্য করেছে। কেজরিওয়াল মেধাবী প্রকৌশলী, কর বিভাগে চাকুরী করতেন।এই চাকুরীর সুবাদে তিনি জেনেছেন কিভাবে ঘুষ দাতা-গ্রহীতা দুর্নীতি করে। গনতান্ত্রিক ব্যবস্থার ফলে তথ্য অধিকারের সাহায্যে তথ্য সংগ্রহ করে তিনি অন্য সকল প্রতিষ্ঠানে কিভাবে দুর্নীতি হয় তাও জেনেছেন। তথ্য…

Read More