বঙ্গবন্ধু, জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষনা ও কুমারী পূজা।

হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা(তাঁহাদের প্রতি সম্মান রেখে বলছি) কুমারী পূজা দিয়ে থাকেন। একজন মেয়েকে কুমারী সাজিয়ে(নিশ্চয়ই সে মেয়ে কুমারী)এ পূজা করা হয়। এ পূজার আয়োজকদের অনেক কাজ করতে হয়। মেয়েটি শুধু আয়োজকদের ইচ্ছা পূরন করে থাকে, এছাড়া তার আর কোন কাজ নেই। মেয়েটির বয়স এমন যে, অনেক মেয়ে হয়ত “কুমারী” এবং “কুমারী পূজা” কি ইহাই জানেনা। ১৯৪৮সাল বা তার পূর্ব হতে ১৯৭০সালের নির্বাচন পর্যন্ত বিশাল রাজনৈতিক কর্মকান্ডের ফসল ১৯৭১-এর স্বাধীনতা ঘোষনা। প্রেক্ষাপট এমনভাবে তৈরী হয় যে, বঙ্গবন্ধুর পক্ষে কাউকে না কাউকে স্বাধীনতার আনুষ্ঠানিক ঘোষনা দিতে হবে। আয়োজকরা উপস্থিত ক্ষেত্রে জিয়াউর রহমানকে পেয়েছেন,…

Read More

WAPDA, RAJUK, Basundhara group, etc.

তৎকালীন WAPDA-water and power development authority-কে state in a state-রাস্ট্রের ভিতর আরেকটি রাস্ট্র বলা হত।এর(WAPDA)চেয়ারম্যান প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদাবান ছিলেন এবং কর্তৃপক্ষের নিজস্ব হেলিকপ্টার তাঁর জন্য বরাদ্ধ ছিল বলে জানা যায়। বাংলাদেশ স্বাধীনের পর ১৯৭২সালে WAPDA-কে ভাগ করে WDB-water development board, PDB-power development board নামে স্বায়ত্বশাসিত ২টি বোর্ড গঠন করা হয়। WAPDA-কে রাস্ট্রের ভিতর আরেকটি রাস্ট্র বলা হত এর বিশালত্ব ও জৌলুষপূর্ন চালচলন, কাজকর্মের জন্য। স্বেচ্ছাচারী বা বেআইনী কাজকর্মের জন্য নহে। RAJUK-কেও আমরা state in a state-বা বাংলাদেশের ভিতর আরেকটি রাস্ট্র বলতে পারি। তবে ইহা তার(RAJUK) বিশালত্ব ও জৌলুষপূর্ন চালচলন, কাজকর্মের জন্য…

Read More

Violation of laws by RAJUK, BLDA, REHAB.

ইস্টার্ন হাউজিং বহু অপকৌশলে বর্তমানে  তার আফতাবনগর প্রকল্পে যে প্রাকৃতিক জলাভূমি/জলাধার ভরাট করছে তা ড্যাপে যাহাই উল্লেখ থাকুকনা কেন, সিএস, আরএস, বিএস, সিটি জরীপে যাহাই রেকর্ড হোকনা কেন,তারা মাননীয় সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ এবং নিম্নোক্ত আইনসমুহ সরাসরি অমান্য করছেঃ- ১।মাননীয় সুপ্রিম কোর্টের CIVIL APPEAL NO.256 OF 2009 with CIVIL APPEAL NOS.253-255 OF 2009. and  CIVIL PETITION FOR LEAVE TO APPEAL NO.1689 OF 2006. “… Even if the Master Plan is adjudged void, Bilamalia and Boliarpur answer inclusive definition of Prakritik Jaladhar Ain as they are low lands retaining rain water.  ……

Read More

DAP, RAJUK, REHAB, BLDA & CORRUPTION.

বাংলাদেশের সরকারী, আধা-সরকারী, স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠানের ন্যুনতম ৫০হাজার কর্মচারী প্রায় ১০০০%(একহাজার পার্সেন্ট) অবৈধ কাজে লিপ্ত।এরা সিবিএ/শ্রমিক ইউনিয়নের সাথে জড়িত।১০০০% কিভাবে?(প্রকৃতপক্ষে কেহ কেহ আরও বেশী)। এরা এক মুহুর্তও তাদের অর্পিত দায়িত্ব পালন না করেই পূরো বেতন নেয়।(এটা ১০০% অবৈধ)। এক মুহুর্তও ওভারটাইম না করে বেতনের বহু বেশী ওভারটাইম বিল নেয়। অন্য স্টাফদেরকে অবৈধ ওভারটাইম বিল নিতে সাহায্য করে এবং সেখান থেকে বখরা নেয়। কোন ভ্রমন না করে কিংবা ব্যক্তিগত কাজে ভ্রমন করে টিএ/ডিএ বিল নেয়। অবৈধ কাজে বা ব্যক্তিগত কাজে গাড়ীর ব্যবহার, তেল চুরি, টেন্ডারবাজী, নিয়োগ-বদলী বানিজ্য, ইত্যাদি হেন কোন অবৈধ কাজ…

Read More

কোকিল ছানা, ঘুষখোর এবং …

কাকের বাসায় কোকিল ছানার বড় হওয়ার পর বুঝা যায় তা কাকের ছানা নহে, কোকিল ছানা। ঘটনা যাহাই হোকনা কেন, একসময় তা প্রকাশ হয়। তবে কোকিল ছানা কাকের বা কোকিলের অবৈধ সন্তান নহে। তবে আমাদের সমাজে লাখ লাখ কোটি কোটি অবৈধ সন্তান আছে, যাদেরকে চেনা যায়না। তবে তাদেরকেও চেনা যায়, কিন্তু আমরা বলিনা। ঘুষ-দুর্নীতির মাধ্যমে তাদেরকে চেনা যায়। ঢাকা মেডিক্যালের দুজন পুরুষ-মহিলা ডাক্তার গভীর রাত্রে মহিলা ডাক্তারের বাসায় তার স্বামীর অনুপস্থিতিতে রাত্রি যাপনকালে আশেপাশের লোকজনের হাতে আটক হন। যদিও সিংহভাগ ক্ষেত্রেই এসব প্রকাশ হয়না। যেহেতু মহিলা ডাক্তার বিবাহিতা এবং স্বামী জীবিত,…

Read More

Diabetes, over population, corruption.

নীরব ঘাতক বলে পরিচিত ডায়াবেটিস কোন জীবানুবাহিত বা ধূমপান, মদপান জাতীয় বদভ্যাসজনিত কোন রোগ নহে। সুস্থ শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় “চিনি” জাতীয় পদার্থ, ইত্যাদি যখন নানা কারনে প্রয়োজনের বেশী হয়ে রক্তে মিশে যায় তখনই তা ডায়াবেটিস রোগের রূপ ধারন করে। যেহেতু ইহা রক্তে মিশে থাকে, যেহেতু রক্ত শরীরের রন্ধ্রে রন্ধ্রে থাকে, যেহেতু এতে কোন ব্যথা অনুভূত হয়না, কোন কারনে রোগী টের না পেলে সীমা ছাড়িয়ে যায়, শরীরের অঙ্গ প্রত্যঙ্গ নীরবে ধ্বংস করে ফেলে, সেজন্য একে নীরব ঘাতক বলে। যাহাই হোকনা কেন, যে কারনে(বংশগত, ইত্যাদি)হোকনা কেন, শরীরের প্রয়োজনীয় তথা ভাল জিনিষ যখন…

Read More

ন্যায়বিচারঃন্যায়ভিত্তিক সমাজের অনুষঙ্গ।

ইসলাম ন্যায়ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠায় সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে।  ন্যায়ভিত্তিক সমাজের ভিত্তি হিসেবে বিবেচিত হয় বিচার ব্যবস্থার ন্যায়পরায়ণতার বিষয়টি। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ আমাদের এ বিষয়ে যেমন বারবার সতর্ক করেছেন তেমনি তার পিয়ারা হাবিব মহানবী (সা.) বারবার বলেছেন, বিচারকাজে কেউ যাতে অন্যায়ের আশ্রয় না নেয়। যারা বিচারে অসততার আশ্রয় নেয় এবং আল্লাহর দেয়া নির্দেশনা অগ্রাহ্য করে তাদের সরাসরি বিধর্মীদের কাতারে নিক্ষিপ্ত করা হয়েছে। সূরা আলমায়েদার ৪৪ নং আয়াতে আল্লাহ ঘোষণা করেছেন : এবং যারা আল্লাহর নাজিলকৃত বিধান অনুযায়ী বিচার শাসন করে না, তারাই কাফের। একই সুরার ৪৫ নং আয়াতে আল্লাহ আরও ঘোষণা করেছেন…

Read More

জনসংখ্যাঃবাংলাদেশের অন্যতম প্রধান সমস্যা।

বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা কি? তা একেকজন একেকরকম বক্তব্য দিবেন বা মন্তব্য করবেন। কেহ বলবেন জনসংখ্যা, কেহ দুর্নীতি, কেহ মাদক, কেহ রাজনৈতিক হানাহানি, ইত্যাদি। গ্রেডিং পদ্ধতিতে যেমন ৮০নম্বর পেলে A+, ১০০নম্বর পেলেও A+. সে হিসাবে এচারটি সমস্যাই A+. ১৯৭২সালের শুরুতেই যখন বাংলাদেশের জনসংখ্যা প্রায় ৭(সাত)কোটি ছিল তখনই  বঙ্গবনধু শেখ মুজিবুর রহমান ইহাকে(জনসংখ্যা) প্রধান সমস্যা হিসাবে চিহ্নিত করেছিলেন। দ্রস্টব্যঃ-http://www.prothom-alo.com/special-supplement/article/946318/ Bottom of Form তাঁর মতো মানুষ আমি দ্বিতীয়টি দেখিনি-ভেদ মারওয়া | …………………………. ”ওই সময় শেখ মুজিব বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বিরাজমান কয়েকটি সমস্যা চিহ্নিত করেছিলেন। ভারতের প্রতি তাঁর বন্ধুভাবাপন্ন অনুভূতি ছিল। তিনি মূলত দুটি…

Read More

ক্রীপস মিশন, ইউএনও, broom এবং broomstick.

১৯৪২সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এবং ভারতের স্বাধীনতা আন্দোলন যখন তুঙ্গে, তখন ক্রীপসকে, যিনি রাশিয়াকে মিত্রশক্তির সাথে যোগ দেওয়াতে অত্যন্ত সফল হন, এবং সে সফলতার দরুন যিনি বৃটেনের পরবর্তী সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী হিসাবে অনেকদূর এগিয়ে যান, তাহার এই সফলতাকে ম্লান করে পরবর্তী সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সকল সম্ভাবনা দূর করতে তাহাকে উদ্ভট কতগুলো প্রস্তাব বা সমাধান সূত্র দিয়ে ভারতে পাঠানো হয়। ইতিহাসে ইহা ক্রীপস মিশন নামে পরিচিত। ক্রীপস মিশনই ব্যর্থ্ হয়নি ব্রিটেনেও এর জেরে ক্রীপস ব্যর্থ্ হন। সূত্রগুলোর একটি ছিল যুদ্ধের ক্রান্তিলগ্নে ভারতীয় নেটিভদের সমন্বয়ে জাতীয় সরকার টাইপের একটি মন্ত্রীসভা গঠিত হবে। সে মন্ত্রীসভার…

Read More

জারজ তত্ব(Bastard theory)( অশ্লীল মনে না করে অনুগ্রহপূর্বক পড়ুন, মানুষের চরিত্র বুঝার জন্য এর প্রয়োজন আছে)।

  ১৩ই ডিসেম্বর, ২০১৩ ইং কাদের মোল্লাকে নিয়ে আবারও লিখলেন গোলাম মাওলা রনি।নিউজ ডেস্ক: জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি আব্দুল কাদের মোল্লাকে নিয়ে আবার ফেসবুকে “অমানুষের পাশবিক নৃশংসতা এবং অশ্লীলতার ইতিবৃত্ত” শিরোনামে স্ট্যাটাস দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য গোলাম মাওলা রনি। স্ট্যাটাসে তিনি বলেন, ‘এই শতাব্দীর সেরা পন্ডিত শ্রী নিরোদ চন্দ্র চৌধুরী বহু বছর আগে লিখেছিলেন বাঙ্গালী জীবনে রমনী নামের এক অকাট্য প্রামাণ্য দলিল। নিরোদ বাবু চোখে অঙ্গুল দিয়ে দেখিয়েছেন যে- আবহমান বাংলার গ্রাম–গঞ্জে নারী পুরুষ কিভাবে অবাধ এবং নীতিহীন যৌনাচারে মেতে ওঠে এবং সমাজ সংসারকে ফাঁকি দিয়ে একের পর এক…

Read More