তথ্য অধিকার আইন প্রয়োগ হলে দুর্নীতি কমবে

খুন, ধর্ষন, ইত্যাদি মামলার আর্জী, চার্জশীট, রায়ের কপি পাওয়া যায়। কিন্তু রাস্তায়, বিল্ডিংয়ে, বিদ্যুৎ লাইনে/কেন্দ্রে/উপকেন্দ্র, ইত্যাদিতে কি পরিমান, কি গুনাবলীর, কোন দেশের কোন কোম্পানীর মালামাল ব্যবহার করার কথা সিডিউলে উল্লেখ আছে, তা জানা যায়না, জানতে তথ্য দেয়না। বিভাগীয় মামলায়, দুদকের মামলায়  অনুসন্ধান/তদন্ত কর্মকর্তার রিপোর্ট পাওয়া যায়না। পাওয়া গেলে বহু নির্দোষ মানুষ বছরের পর বছর মামলার ঘানি টানতনা। গোপন তথ্য জনসাধারণের সামনে প্রকাশ করার জন্যই সরকার তথ্য অধিকার আইন প্রণয়ন করেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান তথ্য কমিশনার প্রফেসর ড. গোলামুর রহমান। তিনি বলেন, ‘এ আইনের যথাযথ প্রয়োগ হলে দুর্নীতি অনেকাংশে কমে…

Read More

কে ”কতগুন” বেশী মেধাবী, কে ”কতগুন” বেশী সৎ/অসৎ, কার কাজ ”কতগুন”  বেশী কঠিন, ……।

ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, বিচারক, সচিব, পুলিশ, দুদক, শিক্ষক, কৃষিবিদ, ইত্যাদি পেশার ব্যক্তিগন কে কার চাইতে বেশী মেধাবী, কে কত বেশী সৎ/অসৎ, কার কাজ কত বেশী কঠিন/সহজ, ইত্যাদি তূলনা করা বা পরিমাপ করার সুনির্দিস্ট কোন স্কেল, মিটারিং ইন্সট্রুমেন্ট, ইত্যাদি নেই। কোন ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ারিং পড়েন না, ইঞ্জিনিয়ার ডাক্তারী পড়েন না। এভাবে সাধারনতঃ এক পেশার ব্যক্তিগন অন্য পেশার লেখাপড়া করেননা। যার ফলে কোন বিষয়ের বা কোন পেশার লেখাপড়া অন্য পেশার লেখাপড়ার চাইতে বেশী কঠিন/সহজ, ইত্যাদি পরিমাপ করা সহজ নহে। তবে অনুমান করা যায়। যেমন ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার  কৃষিবিদদের অনেকেই নিজস্ব বিষয়ে এমএস, পিএইচডি করার বাইরেও…

Read More

সংবাদ সম্মেলনে টিআইবি-প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে দুদক স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না

দুদকের সচ্ছতা ও সক্ষমতা সম্পর্কে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ড. ইফতেখারুজ্জামান বলেন, “দুদক প্রভাবমুক্ত থেকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারে না। তার উদাহরন বিভিন্ন সময়ে পাওয়া গেছে। এর আগে ব্যাংকিং সেক্টর, রিয়েল এস্টেট কোম্পানিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রভাবমুক্ত হয়ে দুদক যে সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবে কাজ করছে, একথা বলা যাবে না। আমাদের পর্যবেক্ষন-পরিবেশ সংরক্ষন আইন, জলাধার  আইন, রিয়েল এস্টেট উন্নয়ন সংক্রান্ত সকল আইন অমান্য করা ছাড়াও রেজিস্ট্রেসন ফি ফাঁকি দেওয়া, আয়কর ফাঁকি দেওয়াসহ রিয়েল এস্টেট কোম্পানিদের আওতায় নির্মিত, নির্মানাধীন ভবনে, আবাসিক এলাকায় যে অনিয়ম দুর্নীতি হয়েছে, তাতে ঢাকা শহর ও আশেপাশের এলাকায় অন্ততঃ ১০(দশ)লাখ দুদকের…

Read More

ইস্টার্ন হাউজিং এবং Murphy’s Law

দেশে বিদেশে অবকাঠামো নির্মানসহ এদেশের আবাসন শিল্পের পথিকৃৎ শিল্পপতি, ইসলাম গ্রুপের প্রষ্ঠিাতা, মরহুম জহুরুল ইসলাম। ইস্টার্ন হাউজিং-নামে ডেভেলপার কোম্পানীর সাহায্যে প্রচুর আবাসিক/বানিজ্যক ভবন, মার্কেট এবং আবাসিক এলাকা, যেমনঃ-পল্লবী, মহানগর, বনশ্রী, আফতাবনগর, ইত্যাদি প্রকল্প নির্মান করেন, যার অনেকগুলো এখনও চলমান। ইহা ছাড়াও জহুরুল ইসলাম মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের মত জনসেবামূলক প্রতিষ্ঠানও নির্মান করেন। বাইরে বা সাধারনে এখনও ইস্টার্ন হাউজিং-এর প্লট-ফ্ল্যাটের মান, রুচি, ইত্যাদির প্রচুর সুনাম। এত সুনামের মধ্যেও এবং ইতিমধ্যে হাজার হাজার কোটি টাকা উপার্জন করা সত্বেও এখনও তারা অবৈধভাবে নানা কৌশলে, সুকৌশলে, কুটকৌশলে, অপকৌশলে, ২-৪-৬ বা ততোধিক আইন অমান্য করে,…

Read More

বসুন্ধরা গ্রুপ: অসুবিধা কি, কারন কি, প্রয়োজন কি?

১৯৮৭সালে বর্তমান বসুন্ধরা গ্রুপ ইস্ট ওয়েস্ট প্রপার্টি ডেভেলপমেন্ট লিঃ নামে রাজউক থেকে ৩০৫একরের অনুমোদন নিয়ে প্রথম ল্যান্ড ডেভেলপমেন্টের কাজ শুরু করে। প্রথমে হয়ত তেমন সুবিধা করতে পারেনি। কিন্তু ১৯৯৬-৯৭এর শেয়ার ব্যবসার উত্থান, তৎপরবর্তীতে প্লট-ফ্ল্যাটে কালো টাকা বিনিয়োগে রাস্ট্রীয় সুযোগের পর তাদেরকে(বসুন্ধরা গ্রুপ) আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। বসুন্ধরা গ্রুপ কর্তৃক বারিধারা আবাসিক প্রকল্পের ম্যাপ ও সাইনবোর্ড দেখে অনুমান করা যায় যে, ইহার আয়তন ন্যুনতম ২৫(পঁচিশ)বর্গকিলোমিটার থেকে ৩০(ত্রিশ) বর্গকিলোমিটার। ইহাসহ চারিদিকে বিশেষ করে উত্তর-দক্ষিন-পূর্বের প্রায় ২০০ বর্গকিলোমিটার এলাকা ছিল চলনবিল, টাঙ্গুয়ার হাওরের মত হাওর বা বিল, যেখানে সৃষ্টির শুরু থেকে ৩০-৪০বছর…

Read More

২-৩জনে ২০-৩০জনের ঘুষ যোগায়।

ঠিকাদারী কাজে টপ-টু-বটম অনেকেই জড়িত থাকে। এদের মধ্যে কেহ সৎ থাকতে পারেন। কার্য্যাদেশের সাথে কাজের/সরবরাহের/সেবার তালীকা(ওয়ার্ক সিডিউল) সংযুক্ত থাকে। প্রায় সকল আইটেমে লিখা থাকে, “নক্সা ও ভারপ্রাপ্ত প্রকৌশলীর নির্দেশ ও সন্তুষ্টি মোতাবেক কাজটি করিতে হইবে।”  প্রকৌশল কাজের ক্ষেত্রে ভারপ্রাপ্ত প্রকৌশলীর(সাধারনতঃ সহকারী/উপবিভাগীয় প্রকৌশলী-AE/SDE) অধীনে তদারককারী কর্মকর্তা (সাধারনতঃ উপসহকারী প্রকৌশলী-SAE) থাকেন, যিনি সার্বক্ষনিক কার্য্যস্থলে(সাইটে) সশরীরে উপস্থিত থেকে কাজের তদারক করেন। মূলতঃ কাগজে কলমে ভারপ্রাপ্ত প্রকৌশলী ও বাস্তবে উপসহকারী প্রকৌশলী কাজের মান ও পরিমানের(Quality & quantity) জন্য ১০০% এ দুজন দায়ী। এদের উপরে থাকেন দপ্তর প্রধান বা নির্বাহী প্রকৌশলী(XEN)। নির্বাহী প্রকৌশলী কাজের মান…

Read More

নিম্ন আদালতের কতিপয় বিচারক(সবাই নহে, যারা দুর্নীতি করে) নিকৃষ্টতম দুর্নীতিবাজ।

  দুর্নীতির ২টি মামলা নিষ্পত্তিতে ৪জন জেলাজজ ও তাদের অধীনস্থ কর্মচারীদের মধ্যে যে অনিয়ম দুর্নীতি আমরা দেখেছি, নিম্নে বর্নিত সকল অনিয়ম দুর্নীতি তাদের মধ্যে বিদ্যমান। সর্বোচ্চ ২-৩বছরে নিষ্পত্তিযোগ্য মামলা, ঘুষ না পেয়ে ৭-৮বছরেও নিষ্পত্তি না করে এভাবে মামলা নিষ্পত্তিতে বিলম্ব ঘটিয়ে বিচারপ্রার্থীদের জীবনীশক্তি ধ্বংস করার মাধ্যমে ৪(চার)জন জেলাজজ প্রমান করেছে তারা থাইল্যান্ডের জঙ্গলের মানবপাচারকারী/মুক্তিপন দাবীকারী মাফিয়াদের চেয়েও জঘন্য। মাফিয়ারাও মুক্তিপন দাবী করে না পেলে ভিক্টিমকে তিলে তিলে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়।  এ বিচারকরা শুধু মাফিয়া নহে, প্রখ্যাত সাংবাদিক জনাব মাহবুব কামালের ভাষায় এদেরকে খুনী-ধর্ষকের সমান্তরালে আসামীর কাঠগড়ায় দাঁড় করানো উচিৎ।…

Read More

বিচারাধীন বিষয়ে কেন সংবাদ প্রকাশ নহে?

বিচারাধীন বিষয়ে সংবাদ প্রকাশ করা যাবেনা, এরূপ কোন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক আইন নেই। বরং এরূপ বিধিনিষেধ আরোপের জন্য নূতন আইন করতে যাওয়ায় ভারতের সর্বোচ্চ আদালত বলেছেন, http://archive.prothom-alo.com/detail/news/288709 বিচারাধীন মামলার সংবাদ প্রকাশে বিধি নিষেধ নয়। ”বিচারাধীন মামলার সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে গণমাধ্যমের জন্য নির্দেশাবলি প্রণয়নের বিষয়টি নাকচ করেছেন ভারতের সর্বোচ্চ আদালত। গতকাল মঙ্গলবার ভারতের সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ সদস্যের সাংবিধানিক বেঞ্চ এ মত দিয়েছেন। তবে আদালত বলেছেন, যদি কোনো ভুক্তভোগী প্রমাণ করতে পারেন যে গণমাধ্যমের প্রতিবেদন তাঁর ন্যায়বিচার পাওয়ার ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে, সে ক্ষেত্রে সংবাদ প্রচারে সাময়িক স্থগিতাদেশ আরোপ করা যেতে পারে।…

Read More

নিম্ন আদালতের কতিপয় দুর্নীতিবাজ বিচারক ও সন্তান হন্তারক চরিত্রহীন মা।

মাদ্রাসা শিক্ষক মাওলানার স্ত্রী কুলসুম সমাজে সতী-সাধ্বী নারী হিসাবেই পরিচিত ছিল। কিন্তু গোল বাঁধে তার দুই নিষ্পাপ ছেলে। তারা মায়ের অনৈতিক কান্ড দেখে ফেলে। কুলসুম পূর্ববৎ সতী-সাধ্বী-ই থাকতে চেয়েছিল। সে তার সতী-সাধ্বী-রূপ মুখোশ নতুন করে পরতে গিয়ে দুই নিষ্পাপ ছেলেকে হত্যা করে। এভাবে সতী-সাধ্বী-রূপ মুখোশ পরা কুলসুম, মরিয়ম, সোনিয়া গং তাদের মুখোশ অব্যাহত রাখতে সন্তানকে হত্যা করে। হত্যাকান্ড দ্বারা তারা প্রমান করেছে যে, মুখোশের আড়ালে তারা পূর্ব থেকেই অসতী ছিল। দ্রস্টব্যঃ-দুই শিশুকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন মা!- http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/703543, অনৈতিক কর্মকাণ্ড দেখে ফেলায় সন্তানকে হত্যা–http://bangla.samakal.net/2016/06/11/217773, ছেলে হত্যার অভিযোগে মাসহ চারজন গ্রেপ্তার-http://www.prothom-alo.com/bangladesh/article/337168/ …

Read More

Lower courts : power absolute, corrupt absolute.

নিম্ন আদালতে আর্থিকভাবে অনেক সৎ বিচারক আছেন। আর্থিকভাবে সৎ অসৎ নির্বিশেষে, নৈতিকভাবে সৎ-অর্থাৎ সঠিকভাবে সকল দায়িত্ব পালনকারী(সঠিক সময় এজলাস করা, কোর্ট ম্যানেজমেন্ট-কেইস ম্যানেজমেন্ট-যেমনঃ সমন-ওয়ারেন্ট ইস্যু/জারী নিশিচতকরন, কন্টিনিউয়াস হিয়ারিং করা, পূরনো মামলা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নিষ্পত্তির ব্যবস্থা করা, অকারনে বারবার সময় প্রদান না করা, পূরনো মামলায় একমাসের কম সময়ে তারিখ ফেলা,  ইত্যাদি মেন্টেইন করা) বিচারকের সংখ্যা খুবই কম। (আরও দ্রস্টব্যঃ-http://www.kalerkantho.com/print-edition/muktadhara/2017/07/17/520095 – ন্যায়বিচারের সন্ধানে যেতে হবে বহুদূর-মো. জাকির হোসেন   …………………………ন্যায়বিচারের গুরুত্বপূর্ণ শর্ত দ্রুত বিচার লাভ। এটি আমাদের সংবিধানের ৩৫ অনুচ্ছেদে উল্লেখ আছে। দ্রুত বিচার লাভের মাপকাঠিতে ন্যায়বিচার পরিমাপ করা হলে ন্যায়বিচার আমাদের…

Read More